চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০

কর্ণফুলী বড়উঠানে কোরআন তেলাওয়াত, হামদ্-নাত ও আযান প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ

প্রকাশ: ২০১৯-০৫-২৭ ১৩:৫০:৩৫ || আপডেট: ২০১৯-০৫-২৭ ১৩:৫০:৩৫

কর্ণফুলী প্রতিনিধি: ২৬ মে কর্ণফুলী উপজেলার বড়উঠান মৌলভী বাড়ীতে “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র” ব্যবস্থাপনায় তৃতীয়বারের মত পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে ২৪ মে শুক্রবার কোরআন তেলাওয়াত, হামদ্-নাত ও আযান প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও ইফতার মাহফিল ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকাম্মেল হক খান’র সভাপতিত্বে, মিনহাজ উদ্দিন খানের সঞ্চালনায়, মাসুম ক্লথ ষ্টোর ও গোল্ডেন ইস্পাত’র সৌজন্যে অনুষ্ঠিত হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে ফটিকছড়ি সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ মোহাম্মদ মনিরুজামান, বিশেষ অতিথি হিসেবে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র” উপদেষ্টা মোঃ খোরশেদুল আলম খান, সমাজ সেবক ও লায়ন ট্রেজার মোছলেহ উদ্দিন খান এমদাদ ও কর্ণফুলি উপজেলার আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ফাউন্ডেশন’র উপদেষ্টা মোঃ মেজবাহ উদ্দিন খান,উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্য উপস্থিত ছিলেন, ফাউন্ডেশন’র ভাইচ-চেয়ারাম্যান মোঃ গোলাম ফারুক, সচিব মোঃ রেজাউল হক খান, ফাউন্ডেশন’র উপদেষ্টা ও ব্যাংকার আলহাজ্ব মোঃ জিয়াউল হক খান, ইউপি মেম্বার সাজ্জাদ হোসেন খান সুমন, সাইফুল্লা খান, মাওলানা নেজাম উদ্দিন খান, মেহরাফ হোসেন খান, আলহাজ্ব মোঃ ইদ্রীস খান, মোঃ মিজানুল হক খান, মফিজুর রহমান চৌধুরী, লিয়াকত হোসেন খান খোকন, এহতেশামুল হক খান, মাইমুনুল ইমলাম খান, তৌফিক আহসান বায়জীদ, কলিমুল্লা খান, মোঃ দিদার, মোঃ সরওয়ার. মোঃ সামি, মোঃ রাব্বি, মোঃ সোহেব, জুনায়েদ, মোঃ ময়নু, মোঃ সোহেল, জিহান, রাকিব, অসিউর রহমান, করিম, মামুন, ওয়াহিদ, মোঃ সাইফু, এজাজ, মোঃ মুরশেদ।

বিচারক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন মৌলভী বাড়ী ওয়াইজ বিবি জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ সরওয়ার আলম আলক্বাদেরী, মাওলানা মোঃ মনছুরুলহক খান, হাফেজ মোঃ তনজির হোসাইন, মাওলানা মোঃ ইছাক, হাফেজ মোঃ ফজরুল রহমান খান ।

কোরআন তেলাওয়াতে ১ম স্থান মোঃ জিহান, ২য় স্থান মোঃ সাজ্জাত আলম, ৩য় স্থান মোঃ ইমান উদ্দিন ও মোঃ সাজেদ উল্লাহ সায়েম, হামদ্-নাতে ১ম স্থান মোঃ রবিউল মুস্তাফা, ২য় স্থান মোঃ সাজ্জাত আলম ,৩য় স্থান মোঃ খোরশেদ আলম, আযান-এ ১ম স্থান মোঃ খোরশেদ আলম, ২য় স্থান মোঃ জিহান, ৩য় স্থান মোঃ হাসনাইন মুস্তাক, মোঃ মহিউদ্দিন খান মোস্তাকিম একমাত্র প্রতিবন্ধী কোরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগিতা অংশ গ্রহন করে এবং ৪র্থ স্থান অধিকার করেন।

প্রধান অতিথি বলেন, রোজার শিক্ষায় ও অলি আল্লাহদের পথ অনুসরন করলে সমাজে বিশৃঙ্খলা, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে। মাসব্যাপী রোজা রাখা এবং রোজার বিধান মেনে চলার মধ্য দিয়ে মানুষ পরিপূর্ণতা লাভ করতে পারে। তিনি সরকারের বিভিন্ন উন্নিয়নমুলক কাজের কথা উল্লেখ করেন এবং ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকাম্মেল হক খান’র মহান উদ্যোগ ও মহৎ উদ্দেশ্য প্রশংসা করেন। তিনি “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র ও এলাকাবাসী ঐতিহাসিক দেয়াং পাহাড়ে আউলিয়াদের নিদর্শন বিভিন্ন অলৌকিক ঘটনাবলীর স্থানটি সংরক্ষণ, মাইজভান্ডারী আধ্যাত্মিক রিসার্চ সেন্টার ও এই পবিত্র স্থানটি উম্মুক্ত করার দাবির প্রতি সমর্থন জানান। “সৈয়দা হোসনে আরা-আলম খান ফাউন্ডেশন’র” এই ধরনের ধর্মীয় প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রশংসা করেন। ফাউন্ডেশন’র” চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মোকাম্মেল হক খান সভাপতির বক্তব্যে- বিশ্ব অলি শাহানশাহ্ জিয়াউল হক মাইজভান্ডারি বাণী দিয়ে শুরু করেন। হালাল খাও, নামাজ পড়ো, আল্লাহ আল্লাহ জিকির কর। সব সমস্যা মিটে যাবে। রমজান মানুষকে সততা, ত্যাগ, সংযম মানবিকতা শিক্ষাদেয়। এ অনুষ্টানটি মাসুম ক্লথ ষ্টোর ও গোল্ডেন ইস্পাত’র এসম্পর করার জন্য ধন্যবাদ জানান। তিনি চট্টগ্রাম’র ঐতিহাসিক দেয়াং পাহাড়ে আউলিয়াদের নিদর্শন সংরক্ষনের জন্য কোরিয়ান ইপিজেড এর কাছে দাবী জানান।

বিশেষ অতিথি লায়ন ট্রেজার মোছলেহ উদ্দিন খান এমদাদ বলেন, রমজানে একসাথে ইফতার ধনী-গরীব এর মাঝে ভ্রাত্বত্বের বন্ধন, ভূলবুঝা বুঝি অধিকতর সুদৃঢ় হয়। মেজবাহ উদ্দিন খান বলেন রমজানের শিক্ষা নিয়ে মানুষ ব্যাক্তিগত, পারিবারিক, সামাজিক এবং রাষ্টীয় জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে নিজেদের পরিচালিত করলে সমাজ থেকে সকল দুর্নীতি জুলুম অন্যায়, এতিমদের হকসহ সকল মন্দ কাজের অবসন ঘটবে। পুরস্কার বিতরণ শেষে ইফতার মাহফিলে সকল মানব জাতির মঙ্গল এবং কল্যানের জন্য মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয়।

ট্যাগ :