চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১

‘পর্যায়ক্রমে সব উপজেলায় ‘কমিউনিটি ভিশন সেন্টার’ চালু করা হবে’

প্রকাশ: ২০২১-০৩-১১ ১৪:৪২:২৫ || আপডেট: ২০২১-০৩-১১ ১৪:৪২:২৫

সিটিজি নিউজ ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রান্তিক মানুষ যাতে বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসা পায় সেজন্য এই প্রকল্প নেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সব উপজেলায় ‘কমিউনিটি ভিশন সেন্টার’ চালু করা হবে।

বৃহস্পতিবার ১১ মার্চ পাঁচটি বিভাগের আওতাধীন ২০টি জেলার ৭০টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্থাপিত ‘কমিউনিটি ভিশন সেন্টার’ কার্যক্রমের উদ্বোধনের সময় তিনি এ কথা বলেন।

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলায় কমিউনিটি ভিশন সেন্টারের উদ্বোধনকালে স্থানীয়দের সঙ্গে মত বিনিময়ের সময় কিছুটা রশিকতা করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, শ্বশুর বাড়ি বলে কথা। কাজেই একটু বেশি কথা শুনতেই হয়। করোনার ঝামেলা চলে গেলে আবার আসবো। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে হাস্যজ্জ্বল ছলে এমন কথা বলেন রংপুরের পুত্রবধূ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ভিডিও কনফারেন্সে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিনোদা রানীর সঞ্চালনায় স্থানীয় একজন উপকারভোগীর সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। উপকারভোগীও তার সঙ্গে কথা বলেন।

উপকারভোগী জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের এখানে কোন চক্ষু চিকিৎসা সেবা ছিল না। এখন উপজেলা কমিউনিটি ক্লিনিকের ভিশন সেন্টারে চক্ষু চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। আমি এখানে চিকিৎসা সেবা পেয়েছি। সরকারিভাবে ওষুধপত্র, ড্রপ ও চশমা পেয়েছি। আমার স্বামীরও চোখের সমস্যা ছিল। তাকে এখান থেকে রংপুর নিয়ে গিয়ে অপারেশন করে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। সে সুস্থ হয়েছে। এখন আমরা ভালো আছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাকে ধন্যবাদ।

জবাবে প্রধানমন্ত্রী ওই উপকারভোগীকে বলেন, আমি খুব খুশি হলাম যে আপনারা উপকার পাচ্ছেন। এতেই আমি খুশি, এতেই আমার আনন্দ। স্থানীয়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষা মানার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরো বলেন, করোনাভাইরাসের সময় সবাই সাবধানে থাকবেন। স্বাস্থ্য সুরক্ষাটা মেনে চলবেন। মাস্ক পরবেন।

ট্যাগ :